Tuesday , September 14 2021
Google Trends
Google Trends

গুগল ট্রেন্ড সম্পর্কে যা জানা দরকার

গুগল ট্রেন্ড সম্পর্কে যা জানা দরকার

গুগল ট্রেন্ড সম্পর্কে যা জানা দরকার; এটা আশ্চর্যজনক নয় যে নতুন এবং উন্নত অনলাইন SEO সরঞ্জামগুলি ক্রমাগত আমাদেরকে অনুসন্ধানের প্রবণতা সনাক্ত করতে এবং মূল্যবান ওয়েব পজিশনিং প্রচারাভিযান ডিজাইন করতে সাহায্য করে।

SEO পজিশনিং কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। অতএব, এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই যে নতুন এবং উন্নত অনলাইন SEO সরঞ্জামগুলি ক্রমাগত আমাদেরকে অনুসন্ধানের প্রবণতা এবং মূল্যবান ওয়েব পজিশনিং প্রচারাভিযান সনাক্ত করতে সহায়তা করে। এই ক্ষেত্রের অন্যতম দরকারী সরঞ্জাম হল গুগল ট্রেন্ডস।

Google AdSense এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়

গুগল ট্রেন্ডস কি?

গুগল ট্রেন্ডস একটি বিনামূল্যে অ্যাপ্লিকেশন যা ব্যবহারকারীর অনুসন্ধানের উপর ভিত্তি করে ওয়েবে সর্বশেষ প্রবণতাগুলি খুঁজে পেতে ব্যবহৃত হয়।

এটি আপনাকে অনুসন্ধানের আরও বিশদ বিশ্লেষণ করতে দেয় কারণ আপনি নির্দিষ্ট সময়টি চিহ্নিত করতে পারেন যখন আপনার কৌশলগত কীওয়ার্ডগুলি সবচেয়ে বেশি অনুসন্ধান করে। এটি বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে, যেমন সম্ভাব্য কীওয়ার্ড seasonতু সনাক্ত করার সময় যা আপনার ব্যবসায়িক কৌশলকে প্রভাবিত করতে পারে।

গুগল ট্রেন্ডস যেভাবে সার্চের মাত্রা দেখায় সেদিকে আমাদের অবশ্যই মনোযোগ দিতে হবে। প্রতিটি কীওয়ার্ডের জন্য এটি যে মান দেখায় তা প্রকৃত মূল্য নয়, বরং একটি অনুমান। এর মান স্কেল 0 থেকে 100 পর্যন্ত যায় এবং আনুপাতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়, 100 সর্বোচ্চ মান এবং 0 সর্বনিম্ন। উদাহরণস্বরূপ, আমাদের একটি কীওয়ার্ড থাকতে পারে যা Google Trends কে 0 দিয়ে চিহ্নিত করে; এর অর্থ এই নয় যে এর কোন অনুসন্ধান নেই, কিন্তু এর অনুসন্ধানগুলি খুব কম।

এই টুলটির প্রকৃত উপকারিতা কেবল অনুসন্ধানের পরিমাণ পাওয়া নয়, বরং এটি গ্রাফের সাথে এই তথ্যের পরিপূরক হয় যাতে আরও ভালভাবে দেখা যায় যে কিছু ক্রমবর্ধমান প্রবণতা, অথবা, বিপরীতভাবে, একটি ক্ষণস্থায়ী হতাশা।

গুগল ট্রেন্ডস আপনাকে কি অফার করে

পারফরম্যান্স-ভিত্তিক এই টুল থেকে সর্বাধিক সুবিধা পেতে, এটি কীভাবে কাজ করে এবং এটি আপনাকে কী অফার করতে পারে তা জানা গুরুত্বপূর্ণ।

গুগল ট্রেন্ডস এর উপাদানগুলিকে এই ৮ টি উপাদানে সংক্ষিপ্ত করা যেতে পারে:

  1. অনুসন্ধান ভলিউম: এগুলি আপেক্ষিক মান যা প্রতিটি কীওয়ার্ড বা বিষয়ের জন্য অনুসন্ধানের সংখ্যা নির্দেশ করে।
  2. অনুসন্ধানের প্রবণতা: গুগল ট্রেন্ডস আমাদের দেখতে দেয় যে কীওয়ার্ড সার্চে উপরে বা নিচে চলে যাচ্ছে কিনা।
  3. সম্পর্কিত অনুসন্ধান: এগুলি এমন শব্দ যা দীর্ঘ-লেজ কীওয়ার্ড তৈরি করতে একটি কীওয়ার্ডের পরিপূরক হতে পারে এবং একই অনুসন্ধানের সাথে সম্পর্কিত। উদাহরণস্বরূপ, শব্দ “বার্ষিকী” এবং শব্দ “উপহার” একসাথে একটি দীর্ঘ-লেজ কীওয়ার্ড “বার্ষিকী উপহার” গঠন করে।
  4. ফিল্টার অনুসন্ধান করুন: এটি খুব উপকারী যখন আমরা একটি নির্দিষ্ট ভৌগোলিক এলাকা বা একটি নির্দিষ্ট তারিখের জন্য অনুসন্ধান দেখতে চাই। এই ফিল্টারগুলি বিশেষভাবে উপকারী হয় যখন ব্যবসাগুলি তাদের কৌশল আরও উন্নত করতে এবং সেগমেন্ট করতে চায়।
  5. পূর্বাভাস: টুলটি ভবিষ্যতে একটি নির্দিষ্ট কীওয়ার্ডের যে প্রবণতা আছে তা অনুমান করার চেষ্টা করে। যদিও এটি একটি সঠিক বিজ্ঞান নয়, পূর্বাভাস একটি নির্দেশিকা হিসাবে কাজ করতে পারে।
  6. পদগুলির তুলনা: এই বিকল্পের সাহায্যে, একটি কীওয়ার্ড বিভিন্ন ভৌগোলিক অঞ্চলে যে সার্চগুলি আছে তা তুলনা করা সম্ভব এবং সময়ের সাথে তার বিবর্তনকে ট্র্যাক করাও সম্ভব।
  7. রপ্তানি: গুগল ট্রেন্ডস আমাদের একটি এক্সেল শীটে প্রাপ্ত সমস্ত ডেটা সংরক্ষণ করতে এবং সুবিধামত আমাদের নিজস্ব পিসিতে এটি অ্যাক্সেস করতে দেয়।
  8. ট্রেন্ডস: এটি টুইটারে ট্রেন্ডিং টপিক লিস্টের সবচেয়ে কাছের জিনিস। গুগল ট্রেন্ডস সর্বাধিক অনুসন্ধান করা বিষয়গুলি দেখায় যা ট্রেন্ডিং এবং প্রাসঙ্গিকতার দ্বারা সেগুলি তালিকাভুক্ত করে। আপনি ইউটিউবের মতো বিশেষ সামাজিক নেটওয়ার্কগুলির প্রবণতাও দেখতে পারেন।

গুগল ট্রেন্ডস কিভাবে ব্যবহার করবেন

এখন যেহেতু আমরা গুগল ট্রেন্ডস এর সম্ভাবনা প্রতিষ্ঠা করেছি, এখন সময় এসেছে কিভাবে আমরা এই টুল থেকে আহরিত সকল তথ্য ব্যবহার করতে পারি এবং তা কাজে লাগাতে পারি।

এখন যেহেতু আমরা গুগল ট্রেন্ডস এর সম্ভাবনা প্রতিষ্ঠা করেছি, এখন সময় এসেছে কিভাবে আমরা এই টুল থেকে আহরিত সকল তথ্য ব্যবহার করতে পারি এবং তা কাজে লাগাতে পারি।

1. সার্চ সেগমেন্টেশন: যদি আমরা একটি স্থানীয় SEO কৌশল বাস্তবায়ন করতে চাই, তাহলে একটি সার্চের ভৌগোলিক বিভাজন অনেক সাহায্য করতে পারে। এটি ইট-ও-মর্টার ব্যবসার জন্য বিশেষভাবে দরকারী।

2. মৌসুমী অনুসন্ধান: যথারীতি, কিছু অনুসন্ধান শুধুমাত্র বছরের নির্দিষ্ট তারিখে ঘটে। কখন তাদের শোষণ করতে হয় তা জানতে তাদের সনাক্ত করা গুরুত্বপূর্ণ।

3. বিষয়বস্তু পরিকল্পনা: বিষয়বস্তু বিপণন কৌশল তৈরি করার সময়, আমাদের একটি সঠিক পরিকল্পনা প্রয়োজন হবে। আমাদের ব্যবসার সাথে সম্পর্কিত অনুসন্ধানের প্রবণতা এবং শর্তাবলী জানা আমাদের আরও ভাল ফলাফলের সাথে একটি পরিকল্পনা করতে সাহায্য করতে পারে।

4. প্রতিদ্বন্দ্বী বিশ্লেষণ: আপনি যে কীওয়ার্ডগুলি একই শিল্পের মধ্যে আপনার প্রতিযোগীরা র rank্যাঙ্ক করার চেষ্টা করছেন তা নির্ধারণ করতে সক্ষম হবেন যে এই প্রবণতায় যোগদান করবেন কিনা বা নিজেকে আলাদা করার চেষ্টা করবেন কিনা সে সম্পর্কে একটি অবগত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য।

5. সঠিক কীওয়ার্ড খুঁজুন: গুগল ট্রেন্ডস আপনাকে আপনার মার্কেট সেক্টর সংক্রান্ত বিষয়বস্তুর জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত কীওয়ার্ড খুঁজে পেতে দেয়।

6. বিভিন্ন পদ অনুসন্ধান করুন: অ্যাপ্লিকেশনটি আপনাকে প্রতিটি অবস্থার মধ্যে কোনটি সেরা তা দেখতে বিভিন্ন পদগুলির জন্য বিভিন্ন অনুসন্ধান স্তরের তুলনা করতে দেয়। এইভাবে, আপনি আপনার প্রতিটি পৃষ্ঠার জন্য নিখুঁত কীওয়ার্ড নির্ধারণ করতে পারেন।

7. ব্যবহারকারীর আচরণ: লক্ষ্য করা সম্ভব যে কোন ব্যবহারকারী সম্ভাব্য গ্রাহক হতে পারে বা কোন গ্রাহকের প্রোফাইল আপনার লক্ষ্য দর্শকদের জন্য উপযুক্ত। উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনি “পরিবেশবান্ধব ফিটনেস পরিধান” বিক্রি করেন এবং সেই অনুসন্ধানটি বড় শহরগুলিতে প্রবণ হয়ে উঠছে, কিন্তু ছোট শহরে এটির আগ্রহের মাত্রা নেই, আপনার ক্রেতা ব্যক্তিত্বকে সংজ্ঞায়িত করার জন্য আপনার কাছে ইতিমধ্যেই একটি সূত্র রয়েছে।

8. সার্চে অফলাইন কর্মের প্রভাব: গুগল ট্রেন্ডস ডিজিটাল মার্কেটিং এবং এর বিপরীতে অফলাইন প্রচারাভিযানের প্রভাব পরিমাপ করা সম্ভব করে তোলে। উদাহরণস্বরূপ, আপনি আপনার অনলাইন বিপণন প্রচারাভিযান কিভাবে আপনার দৈহিক প্রতিষ্ঠাকে প্রভাবিত করে অথবা আপনি অফলাইনে যে পরিবর্তনগুলি অনলাইন চ্যানেলের মাধ্যমে কোম্পানির বিক্রয়কে প্রভাবিত করে তা ট্র্যাক করতে পারেন।

Conclusion

এতে কোন সন্দেহ নেই যে গুগল ট্রেন্ডস একটি আকর্ষণীয় অ্যাপ্লিকেশন যা আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং কৌশলকে সম্পূর্ণ নতুন স্তরে নিয়ে যেতে পারে। আপনার মার্কেটিং এবং SEO পজিশনিং উন্নত করার ক্ষেত্রে আপনার টুল অস্ত্রাগারে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য এটি কেবল একটি বুদ্ধিমান পছন্দ নয়, তবে এটি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে।

About Admin

Check Also

আপনার ফোনের ব্যাটারি দীর্ঘস্থায়ী করার 10 টি উপায়|

আপনার ফোনের ব্যাটারি দীর্ঘস্থায়ী করার 10 টি উপায়|

ব্যাটারি দীর্ঘস্থায়ী করার 10 টি উপায়| আজ আমি আপনাদের সাথে এই দরকারী বিষয় নিয়ে আলোচনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *